,

ভ্যাট সংক্রান্ত সবর্শেষ জরুরি কথাসমগ্র

8507055-800x450

।।রবিউল হোসাইন চৌধুরি।।

“জ্বালোরে জ্বালো, আগুন জ্বালো” ; সাধারণত এমন স্লোগানে বাংলাদেশে আন্দোলন পরিচালিত হয় কিন্তু এই প্রথম আন্দোলনের স্লোগান ছিল ” জ্বালোরে জ্বালো, শিক্ষার আলো” এমন স্লোগানে ! নেতৃত্ববিহীন, ভাঙচুর বিহীন আন্দোলন শেষে ভ্যাট প্রত্যাহার হয়েছে ,শিক্ষার্থীরা জয়ী হয়েছে কিন্তু আন্দোলন শেষ হয় নি ! কিছু বিষয় একটু খেয়াল করা যাক:

১। আমি বিশ্বাস করি বাংলাদেশের সরকার অপেক্ষা বিশ্ববিদ্যালয়ের মালিক আরো বড় মাপের কসাই ! প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ে কয়েকশ হতে হাজার কোটি টাকা মজুদ আছে অথচ শিক্ষার্থীদের জন্য খুব কম খরচ করে । এরপরও প্রতিবছর টিউশন বর্ধিত করা বিশ্ববিদ্যালয়গুলো অভ্যাসে পরিনত হয়েছে !! যদি বিশ্ববিদ্যালয়ের এই ফি বাড়ানো বন্ধ করা না যায় শিক্ষা বানিজ্যই থেকে যাবে , শিক্ষার্থীদের পকেট খালি হতেই থাকবে ! এই আন্দোলনে বাংলাদেশে প্রথম বারের মত প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় নতুন শক্তি হিসাবে আবির্ভূত হয়েছে ।। সরকার, বিশ্ববিদ্যালয়সহ সারা দেশ এদের শক্তি সম্পর্কে অবগত ! সুতরাং বিশ্ববিদ্যালয় যদি টিউশন ফি বাড়ায় এই প্লাটফর্মের মাধ্যমে একে দমন করতে হবে ! সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ন সবাই মিলে যদি UGC দৃষ্টি আকষর্ন করে বিশ্ববিদ্যালয় সমুহের সমস্যা এবং নির্দিষ্ট টিউশন ফি প্রণয়নের ব্যাপারে পদক্ষেপ শুরু করা যেতে পারে তবেই শিক্ষা মৌলিক অধিকার হিসাবে প্রতিষ্ঠিত হতে পারে !!

২। এই আন্দোলনে কোন নেতৃত্ব ছিল না তবু রক্তপাত হয়নি ( হামলা বাদ দিয়ে ) , গাড়ী ভাঙে নি, নিজেরা নিজেরা মারামারি ঘটেনি, নারীর সহিংসতা ঘটে নি । এত গুলো বিষয় না ঘটার পিছনে মুল এখানে দলাদলি নেই ! অন্যান্য প্রতিষ্ঠানর এসব ঘটে কারণ বাজে রাজনীতির চর্চা , ঐসব জায়গায় সবাই “লিডার” হতে চায়, ক্ষমতা চায় ! প্রাইভেট আন্দোলনে চেয়েছে কেবল নিজেদের অধিকার ! তাই প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের যেন কোন ভাবে উলঙ্গ রাজনীতি শুরু না হয় সেদিকে সবার খেয়াল রাখতে হবে ! যদি করতেই হয় তবে রাজনীতি হবে আদর্শ ধারনের জন্য , অন্যদের দমন করার জন্য নয় !! প্রাইভেটে যে ইমেজ তৈরি হয়েছে সেটা ধরে রাখার ব্যাপারে সবাই সচেষ্ট হলে নিজের ভবিষ্যত, বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মান ও শিক্ষার পরিবেশ সবই ঠিক রাখা সম্ভব !!



৩। প্রাইভেট- পাবলিক বৈষম্য ভুলে যাওয়ার সময় হয়েছিল অনেক আগেই কিন্তু আমরা এখনো ভুলতে পারিনি ! এটি ভুলে যেতে হবে, পাবলিকানরা নিজেদের যোগ্যতার প্রমান দেয় ভর্তির পরীক্ষায় , তাদের কোয়ালিটি সম্পর্কে কোন সন্দেহ নেই ! আবার প্রাইভেট মানেই টাকার জোরে পড়া , ফামর্ের মুরগীর এসবেরও কোন ভিত্তি নেই ! প্রাইভেটের ছেলেরা দেশে বিদেশে ভালো করছে , এমনকি সরকারী বি সি এস পরীক্ষায়ও প্রথম হয়ে প্রাইভেটের শিক্ষার্থীরা নিজেদের প্রমান করেছে !! আমি পাবলিকে চান্স পেয়েও প্রাইভেটে পড়েছি , আমার কিছু বাড়েও নি, কমেও নি ! কথা হল যে যেখানে সুবিধা মনে করে ! কুলাঙ্গার প্রাইভেট ও জন্মে, পাবলিকেও জন্মে তাই শিক্ষা প্রশ্নে পাবলিক – প্রাইভেট, নীলদল-সাদাদল ইত্যাদির অবসান হোক !!

নিশ্চিতে, নির্ভাবনায় ভ্যাটহীন স্বপ্ন দেখুক সব শিক্ষার্থী !! জয় হোক সব স্বপ্নবাজদের !! আমি যদি আবার ২০১০ সাল হতে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা শুরু করতে পারতাম !!

রবিউল হোসাইন চৌধুরি

রবিউল হোসাইন চৌধুরি

‘ফেসবুক কর্ণার এ প্রকাশিত লেখা প্রয়োজন২৪ এর নিজস্ব প্রতিবেদন নয়, ফেসবুক ব্যাবহার কারীদের মতামত।

Share Button