,

বাংলাদেশের সবচাইতে ধনী ক্রিকেটার কে?

বাংলাদেশের-সবচাইতে-ধনী-ক্রিকেটার

সাম্প্রতিক এক জরিপে উঠে এসেছে বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি অর্থ উপার্জনকারী ক্রিকেটার হলেন সাকিব আল হাসান। তার সম্পদের পরিমাণ ৩৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার (বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ২৭৫ কোটি)।

ক্রিকেট মাঠে প্রায় ৮ বছর ধরে ব্যাট ও বল হাতে বাংলাদেশের সেরা পারফরমার সাকিব। যার ফলেই ২০১১ সালে সুযোগ পান ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে(আইপিএল)। তখন থেকেই বদলে যেতে থাকে সাকিবের স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি। এখন বাংলাদেশের অন্যতম ধনী ব্যক্তিত্বে পরিণত হতে যাচ্ছেন তিনি।

বিপিএল, বিগব্যাশ, কাউন্টি, এসএলপিএল, খেলে মাঠের ইনকামের পাশাপশি তার আরো রয়েছে রেস্টুরেন্ট, কসমেটিকস এবং ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টের ব্যাবসা। তাছাড়া পেপসি, নর্টন, বাংলালিংকসহ দেশের শীর্ষস্থানীয় বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের ব্র্যান্ড এম্বাসেডর সাকিব আল হাসান। তার বর্তমান সম্পদের পরিমাণ বাংলাদেশী টাকায় ২৭৫ কোটি!

আইপিএলে কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে খেলেন সাকিব আল হাসান। সর্বশেষ সংস্করণে সাকিবের মূল্য ছিল চার লাখ ২৫ হাজার ইউএস ডলার। বিপিএলের শেষ আসর প্লেয়ার বাই চয়েজ হলেও প্রথম দুই আসরে ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক নির্ধারিত হয়েছিল নিলামের মাধ্যমে। এবার রংপুর রাইডার্সের হয়ে ৩৫ লাখ টাকা পান বিশ্বসেরা এই আলরাউন্ডার। পাকিস্তান সুপার লিগেও (পিসিএল)সাকিব ছিলেন প্লাটিনাম ক্যাটাগরিতে। যার নির্ধারিত মূল্য হিসেবে এক লাখ ৪০ হাজার ডলার পাবেন তিনি সেখানে খেলতে পারলে।



অবাক হলেও এটা সত্য এতসব অর্জন তার গত ৫ বছরেই। সাকিব আল হাসান শুধু ক্রিকেটে নন, ব্যবসা ক্ষেত্রেও তিনি সফল। খেলার মাঠের সাকিবকে তো সবাই চেনেন, মাঠের বাইরের সাকিব কিন্তু কিছুতে কম নন।

পোস্টটি ফেসবুক এ শেয়ার করে অন্যদের জানার সুযোগ দিন। আপনার প্রয়োজনীয় সব গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট পেতেপ্রয়োজন২৪.কমপেইজ এ লাইক দিয়ে অ্যাক্টিভ থাকুন।

Share Button