,

ছাত্রলীগ নেতা সোহেলকে ছুরিকাঘাতকারী ‘শনাক্ত’

sohelসোহেলকে

চকবাজার থানার ওসি আজিজ আহমেদ বুধবার গণমাধ্যমকে বলেন, “সোহান নামে ওই বিশ্ববিদ্যালয়েরই এক ছাত্র সোহেলকে ছুরি মেরেছে।”

সোহেলের কয়েকজন সহপাঠী ওই ঘটনার ভিডিওচিত্র দেখে সোহানকে শনাক্ত করেছেন বলে জানান তিনি। খবর বিডিনিউজের।

মঙ্গলবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়াসা মোড় ক্যাম্পাসে দুই পক্ষের সংঘর্ষের মধ্যে ছুরিকাঘাতে প্রাণ হারান ছাত্রলীগের চট্টগ্রাম নগর কমিটির উপ-সম্পাদক সোহেল। এমবিএ প্রথম সেমিস্টারের ছাত্র সোহেল সিটি মেয়র আ জ ম নাছিরের অনুসারী ছিলেন বলে ছাত্রলীগ নেতারা জানান।

বিশ্ববিদ্যালয়ে বিবিএ অনুষদের ২৩তম ব্যাচের বিদায় অনুষ্ঠানের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে দুই পক্ষ ওই সংঘর্ষে জড়ায় বলে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা জানান।

ওই ঘটনার ভিডিওচিত্র পুলিশের হাতে রয়েছে জানিয়ে ওসি বলেন, এ পর্যন্ত গ্রেপ্তার পাঁচজনের মধ্যে চারজনকে হামলায় অংশ নিতে দেখা গেছে। তারা হলেন- আশরাফুল ইসলাম আশরাফ, ওয়াহিদুজ্জামান নিশান, মো. জিয়াউল হায়দার চৌধুরী ও এস এম গোলাম মোস্তফা।

গ্রেপ্তার অন্যজন হলেন তামিউল আলম তামিম। ওই পাঁচজনসহ মোট ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে নগরীর চকবাজার থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন সোহেলের বাবা আবু তাহের।



ওসি আজিজ আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, ভিডিওচিত্রে আশরাফ, নিশান, জিয়াউল ও মোস্তফাকে হামলায় অংশ নিতে দেখা গেছে। “এছাড়া সোহান নামের একজন নিজের পকেট থেকে ছুরি বের করে এবং তা দিয়ে সোহেলকে আঘাত করছে এমন দৃশ্যও পেয়েছি।”

মামলায় সোহানকেও আসামি করা হয়েছে। এরা সবাই প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী বলে ওসি জানান।

পোস্টটি ফেসবুক এ শেয়ার করে অন্যদের জানার সুযোগ দিন। আপনার প্রয়োজনীয় সব গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট পেতে প্রয়োজন২৪.কম পেইজ এ লাইক দিয়ে অ্যাক্টিভ থাকুন।

Share Button