,

কাছের মানুষের আত্মহত্যার পূর্বাভাস বুঝেবেন যেভাবে

increasing-trend-of-suicide-655x360



মানুষের মধ্যে বাড়ছে মানসিক অবসাদ৷ আর তার ফলেই বাড়ছে আত্মহত্যার প্রবনতা৷ তবে আত্মহত্যা কি শুধুই মানসিক অবসাদের ফল? নাকি আরও কিছু লুকিয়ে আছে এই প্রবণতার পিছনে৷ মনোবিদরা বলছেন আত্মহত্যার প্রবণতা মানুষের আঁচ করা যায় মানুষের মধ্যে কিছু আচরণগত বৈশিষ্ট্য দেখে৷ আগে থেকে কোনও মানুষের মধ্যে আত্মহত্যার প্রবণতা রয়েছে কিনা তা জানতে পারলে আপনিও বাঁচাতে পারেন কোনও মানুষের জীবন৷ তাকে ফিরিয়ে আনতে পারেন স্বাভাবিক জীবনে৷ আপনার প্রিয়জনের মধ্যে কি আচরণগত বৈশিষ্ট্য আপনাকে আগে থেকে জানান দেবে সে আত্মহত্যা করতে পারে কি না৷ দেখে নিন সেগুলি কি-

১) মনোবিদদের মতে, শুধু বিষাদ নয়, বরং বিষাদের পাশাপাশি হঠাৎ হঠাৎ উত্তেজিত হয়ে যাওয়ার প্রবণতা আত্মহত্যার আগে দেখা যায়। আত্মহত্যার ঝুঁকি আছে এমন ৪০ শতাংশের মধ্যেই এই আচরণ থাকে।

২) কোনও চিন্তাভাবনা না করে, হুটহাট বিভিন্ন কাজ করে ফেলেন এসব মানুষ। যেমন প্রচণ্ড গতিতে গাড়ি চালানো, যার তার সঙ্গে সম্পর্কে লিপ্ত হওয়া এগুলো হতে পারে আত্মহত্যার পুর্বাভাস। এর থেকে বোঝা যায় মানুষটি একাকীত্বে ভুগছেন৷



৩) আত্মহত্যার আগে শারীরিক একটি লক্ষণ হল অস্থিরতা। সেই মানুষটি অস্থির হয়ে বারবার হাঁটাহাঁটি করতে থাকবেন ঘরের ভিতরে, হাত মোচড়াতে থাকবেন। এমনকি কারও কারও মাঝে দেখা যায় বারবার পোশাক খুলে আবার পরার ব্যাপারটি। অন্যদের তুলনায় এদের মধ্যে আত্মহত্যার সম্ভাবনা থাকে ৫০ শতাংশ বেশি।

৪) দুর্ঘটনা ঘটতে পারে, তা জেনেও এসব মানুষ ঝুঁকিপুর্ণ বিভিন্ন কাজ করে থাকেন। যেমন রেলিং এর উপরে বা ছাদের কোনা দিয়ে হাঁটাহাঁটি। জীবনের প্রতি মায়া কমে আসার ব্যাপারটি এখান থেকেই বুঝে নেওয়া যায়।

খবরটি ফেসবুক এ শেয়ার করে অন্যদের জানার সুযোগ দিন। আপনার প্রয়োজনীয় সব গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট পেতে প্রয়োজন২৪.কম পেইজ এ লাইক দিয়ে অ্যাক্টিভ থাকুন।

Share Button