,

আপনি কি আপনার সঙ্গীর দ্বারা চালিত? জেনে নিন ৫টি লক্ষণ

856629865-obligation-calculating-debt-recession

ওয়েব ডেস্ক: যেই সম্পর্ক একসময় আপনাকে আনন্দ দিয়েছে সেই সম্পর্কেই এখন দম আটকে আসছে? কেন হচ্ছে বলুন তো এমনটা? আপনার সঙ্গী আপনাকে চালিত করছে না তো? বেশিরভাগ সময়ই এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজে পান না সমস্যায় থাকা মানুষটি। কারণ, অধিকাংশ সময়ই যিনি চালিত হচ্ছেন তিনি বুঝতেই পারেন না কীভাবে তার সঙ্গী কথার প্যাঁচে, বিভিন্ন ছলে তাকে চালনা করে চলেছে। ব্যাপারটা সত্যিই ভয়ের, তাই না?

যদি সতর্ক থাকেন তবে বিভিন্ন ঘটনা, সমস্যার লক্ষণ থেকে বুঝতে পারবেন আপনি আপনার সঙ্গীর দ্বারা চালিত কিনা। এমনই ৫টি লক্ষণ-

১. সঙ্গী আপনাকে সবসময় অপরাধ বোধে ভুগতে বাধ্য করেন

অপরাধ বোধ থেকে চালিত হওয়া শুরু হয়। আপনার সঙ্গী যদি আপনাকে নিজের কাজের জন্য নিজেকে অপরাধী মনে করাতে পারেন(আপনার কোনও ভুল না থাকলেও) তাহলে আপনাকে নিজের মতো চালিত করতে অনেক সুবিধা হবে। যেমন, রান্নাটা ভাল হয়েছিল, কিন্তু আমি যেমনটা আশা করছিলাম ঠিক তেমনটা হয়নি। তবে তুমি খুশি হলে আমিও খুশি। তাতে যদি আমার ইচ্ছা অপূর্ণও থাকে।

এই ধরণের কথা শুনলে কেমন অনুভূতি হয় আপনার? কথার মধ্যে আপনাকে বুঝিয়ে তো দিলেন আপনাকে কত ভালবাসেন, কিন্তু আপনি ভুগতে থাকলেন অপরাধ বোধে। এই ধরণের মানুষরা আপনাকে বোঝানোর চেষ্টা করেন যে আপনারে ভালবেসে উদ্ধার করে দিচ্ছেন। তাই আপনার উচিত্ জীবনের বাকি সব কিছু ভুলে যাওয়া। অসুস্থ মানসিকতার লক্ষণ।

২. নিজের নিরাপত্তাহীনতা আপনার মধ্যে সঞ্চার করা

এই ধরণের মানুষরা প্রায়শই নিজেদের নিরাপত্তাহীনতা সঙ্গীর মধ্যে সঞ্চার করতে সচেষ্ট হন। যেমন, “আমার আগের প্রেমিকা আমার সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে। তাই আমি চাই না তোমার কোনও পুরুষ বন্ধু থাকুক।” বা “আমার এভাবে আচরণ করা উচিত্ হয়নি কিন্তু তোমাকে হারাতে আমি ভয় পাই।” সঙ্গীর নিরাপত্তাহীনতা বুঝতে চেষ্টা করুন, সঙ্গ দিন, কিন্তু ওনার নিরাপত্তাহীনতায় ভোগা কখনই আপনার সম্পর্কের চালিকাশক্তি হতে পারে না।

৩. নিজের প্রতি সন্দেহ জাগা

এই ধরণের মানুষরা এমন পরিস্থিতি তৈরি করেন যাতে আপনি নিজের ওপর বিশ্বাস হারিয়ে ফেলেন। আপনার নিরাপত্তাহীনতাকে আপনার বিরুদ্ধে ব্যবহার করেন। আপনাকে বোঝান আপনি যা করছেন তা ভুল এবং উনি নিজে সেই কাজ কত ভাল করতে পারবেন। আপনার দুর্বলতাকে চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে বলেন যে ওনার সাহায্য ছাড়া আপনার পক্ষে ভাল কিছু করা সম্ভব না। আপনাকে বোঝান যে উনি সবসময় আপনার ভালর জন্য ভাবছেন, কিন্তু প্রকৃতপক্ষে ঠিক উল্টোটা। আপনার ভাবনাচিন্তাকে এমন ভাবে চালিত করেন যাতে আপনি সবক্ষেত্রেই ওনার দেখানো পথেই চলেন। ধীরে ধীরে আপনি নিজের ওপর বিশ্বাস হারিয়ে ফেলেন।



৪. নিজের আবেগের জন্য আপনাকে দায়ী করা

এই ধরণের মানুষরা প্রথমে আপনার ভাবনাকে নিজেদের মতো করে চালনা করেন, তারপর ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে গিয়ে নিজেদের আবেগের জন্য আপনাকেই দায়ী করেন। আপনাকে বোঝান, যদি ওনার দুঃখ হয় তবে আপনিই সেই দুঃখের মূল। যদি রেগে যান তবে নিশ্চয়ই আপনিই কোনও ভুল করেছেন। যতটা সম্ভব আপনার জীবনে নিয়ন্ত্রণ করেই আপনার সঙ্গী আনন্দ খুঁজে পান।

৫. আপনাকে বিশ্বাস করান যে উনি যা চান আপনিও তাই চান

সম্পর্কে থাকতে থাকতে আপনি ভুলেই যান যে নিজে কী চান, নিজের কী ভাল লাগে। সঙ্গীকে সবসময় খুশি রাখাই আপনার একমাত্র কাজ। যদি সঙ্গীকে খুশি রাখাই আপনার জীবনের প্রধান লক্ষ্য হয়ে দাঁড়ায় তবে অবশ্যই আপনি সঙ্গীর দ্বারা চালিত।

আপনার সম্পর্কে যদি এই লক্ষণগুলো দেখতে পান তাহলে অবশ্যই ভেবে দেখুন।

খবরটি ফেসবুক এ শেয়ার করে অন্যদের জানার সুযোগ দিন। আপনার প্রয়োজনীয় সব গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট পেতে প্রয়োজন২৪.কম পেইজ এ লাইক দিয়ে অ্যাক্টিভ থাকুন।

Share Button